বসত বাড়ি ফিরে পেতে চায় নলছিটির রিমি

0

নিজস্ব প্রতিবেদক : ঝালকাঠির নলছিটিতে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করে নিজ বসত বাড়ি ফিরে পাওয়ার দাবি জানিয়ে সুমাইয়া আক্তার রিমি নামে এক অসহায় যুবতী। শনিবার দুপুরে ঝালকাঠি প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন তিনি এ দাবি জানান। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রিমি। লিখিত বক্তব্যে তিনি দাবি করেন, চাচাতো মামা নলছিটির অনুরাগ গ্রামের অলিউল ইসলাম রুনু চৌধুরী তাদের বাড়ি থেকে উচ্ছেদ করার জন্য নানা রকমের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছেন। ‘চরিত্রহীন’ বলে বদনাম ছড়িয়ে মেয়ের সমতুল্য রিমিকে বাড়ি ছাড়া করার অভিযোগও রয়েছে রুনু চৌধুরীর বিরুদ্ধে। এমনকি ফেনসিডিল এবং জাল টাকা ঘরে ঢুকিয়ে বদনাম রটিয়েছে তার নামে। ২০১৪ সালে তিনি যখন দশম শ্রেণিতে পড়ে, তখন তার বাসায় ফেনসিডিল এবং জাল টাকা রেখে পুলিশে খবর দিয়ে রিমিকে গ্রেপ্তার করানো হয়। সুমাইয়া আক্তার রিমি অভিযোগ করেন, ‘আমি নিজের ইচ্ছায় বিয়ে করি। আমার একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। সন্তানের বয়স যখন চারমাস তখন, আমার স্বামী মামুন ব্রেন স্টোক করেন। বর্তমানে তিনি কোন কাজ করতে পারছেন না। সংসার চালাতে হচ্ছে আমাকে। বর্তমানে আমার সন্তানের বয়স তিন বছর। সব মিলিয়ে আমি এখন হাপিয়ে গেছি। না পারি পড়াশুনার খরচ চালাতে, না পারি মিথ্যা মামলার খরচ চালাতে। আমার মামা প্রতি মাসে আমার খরচের জন্য ৫০০০ হাজার টাকা দিচ্ছেন। যা দিয়ে আমি বর্তমানে শহরে বাসা ভাড়া করে বসবাস করছি। জীবিকা নির্বাহের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার যোগ্যতা অনুযায়ে একটি চাকুরি দাবি করছি। যাতে স্বামী ও সন্তান নিয়ে আমার সংসার চালাতে পারি। পাশাপাশি আমার অনুরাগ গ্রামের বাড়ি ও জমি ফিরে পাওয়া জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি। তাঁর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রকারী অলিউল ইসলাম রুনু চৌধুরীর বিচারও দাবি করেন রিমি। রিমি বলেন, অলিউল ইসলাম রুনু চৌধুরী একজন ভূমিদস্যু ও কালো টাকার মালিক। সব সময় সে আমাদের বিপদে ফেলার ষড়যন্ত্র করে। আমাদের জমি দখল করে আছে সে। তার হাত থেকে রক্ষা পেতে চাই আমরা।

Share.

Leave A Reply