ঝালকাঠিতে বিদ্যালয় পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন করল ছাত্রলীগ

0

নিজস্ব প্রতিবেদক : শিক্ষার্থীদের দেহে করোনা সংক্রমন এড়াতে সরকারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বন্ধরাখা সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়া হয়েছে। ঝালকাঠিতে কোমলমতি শিশু কিশোর শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যঝুকি কমাতে বিদ্যালয়েরর কক্ষ ও কম্পাউন্ড পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা অভিযানে নেমেছে ছাত্রলীগের সদস্যরা। ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক এর তত্ত্বাবধানে শনিবার থেকে এই কর্মসূচী শুরু করা হয়েছে। কর্মসূচীর প্রথমদিন পৌর শহরের বাহের রোড এলাকার শাহী মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং কাঠপট্টি সড়কের কালীতাঁরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে দিনভর পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচি পালন করা হয়েছে। সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় গুলোতে লোকবল ও অর্থবরাদ্দ কম থাকায় পৌর এলাকার এসব বিদ্যালয়গুলোতে সেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে কাজে নেমেছে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা। শ্রেনীকক্ষ, আসবাব ছাড়াও স্কুল গুলোর আশপাশে জমে থাকা আবর্জনা ও ড্রেন পরিস্কার করে দিচ্ছে তারা। কভিড ১৯ নভেল করোনা ভাইরাসের প্রকোপ নিম্মমুখী হলেও দেশের বিভিন্ন স্থানে বেড়েছে ডেঙ্গু আক্রান্তের সংখ্যা। আর সেই বিষটা মাথায় রেখে মশক নিধন করতে বিদ্যালয়ের চারপাশে ছাত্রলীগ কর্মীরা কিটনাশক স্প্রে করে দিচ্ছে। ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকের নেতৃত্বে প্রথম দিনের পরিচ্ছন্নতা অভিযানে সেচ্ছাশ্রম দিয়েছে ছাত্রলীগনেতা আলভী মহিউদ্দিন, ফয়সাল খাঁনসহ ছাত্রলীগ কর্মী নাজমুস সাকিব নির্ঝর, মারজান, রিফাত, রাফি, অর্পন, অপি, পরশ এবং মুন্না। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ ঝালকাঠি জেলা শাখার তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক, আলভী মহিউদ্দিন বলেন, ‘ছাত্রলীগের প্রত্যেকটি কাজ ঢাকা থেকে নজরদারী করছেন আমাদের অবিভাবক ঝালকাঠি-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য আমির হোসেন আমু এমপি মহোদয়। আমরা তার নির্দেশ ও পরামর্শে স্কুল পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচী পরিচালনা করছি’। ঝালকাঠি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিক বলেন, ‘নেতার নির্দেশে শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যসুরক্ষার কথা চিন্তা করে আমরা এই কর্মসূচি গ্রহন করেছি। বিদ্যালয় খোলার পরেও আমাদের এই কার্যক্রম চলমান থাকবে।

Share.

Leave A Reply